পানামা পেপার্স: মিডিয়াগুলি বাংলাদেশিদের নাম পাচ্ছে কোথায়?

আপডেট :: পানামা পেপার্সে থাকা বাংলাদেশিদের নাম ১০ মে প্রথম প্রহরে (রাত ১২টায়) প্রকাশ করেছে আইসিআইজে। সেগুলো পাওয়া যাবে এখানে। তালিকার একবারে ডান কলামে তথ্যের উৎসের নাম লেখা আছে।

বিশ্ব-কাঁপানো ‘পানামা পেপার্সে’ কয়েকজন বাংলাদেশির নাম আছে। এরকম খবর প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের কয়েকটি সংবাদমাধ্যম। খবরে তারা কিছু ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নাম প্রকাশ করে দাবি করেছে, এগুলো ‘পানামা পেপার্স’-এ পাওয়া গেছে। খবরের জের ধরে ওই ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে দুর্নীতি দমন কমিশন তদন্তের উদ্যোগও নিয়েছে।

Panama_Papers, পানামা_পেপার্স
চ্যানেল আইয়ে প্রকাশিত খবরের স্ক্রিনশট

পানামা পেপার্সে বাংলাদেশি- এই শিরোনামে ৫ এপ্রিল প্রথম খবর প্রকাশ চ্যানেল আই অনলাইন। তাদের খবরে অবশ্য কোনো নাম প্রকাশ করা হয়নি। পরদিন একইরকম খবর আসে যুগান্তরে। সর্বশেষ ৭ এপ্রিল এই খবর প্রকাশ করে ইংরেজি দৈনিক অবজারভার। এই দুই সংবাদমাধ্যমই কিছু ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের নাম প্রকাশ করেছে।

তিন সংবাদমাধ্যমে ‘পানামা পেপার্স’-এ বাংলাদেশি ব্যক্তি বা বাংলাদেশিদের যেসব প্রতিষ্ঠানের নাম প্রকাশ হয়েছে তা কি সঠিক?

মিডিয়ায় যেসব ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের নাম প্রকাশ হয়েছে সেগুলো সব আইসিআইজে-র ‘অফশোর লিকস’ থেকে নেয়া। এই ‘অফশোর লিকস’ এবং ‘পানামা পেপার্স’ দুটি ভিন্ন বিষয়।

P Papaers-Jgntr-wrong
যুগান্তর অনলাইনে প্রকাশিত খবরের স্ক্রিনশট। পত্রিকাটির মুদ্রিত সংস্করণেও এ খবর প্রকাশ হয়

‘অফশোর লিকস’-এ নথির সংখ্যা ছিলো ২৫ লাখ। এই নথিগুলো আইসিআইজে সবার জন্য প্রকাশ করতে শুরু করে ২০১৩ সালের এপ্রিল মাসে। সেই তালিকার নামগুলিই পানামা পেপার্সে পাওয়া গেছে বলে দাবি আই অনলাইন, যুগান্তর ও অবজারভারের।

‘পানামা পেপার্স’-এ নথির সংখ্যা ১ কোটি ১৫ লাখ। এগুলো এখন পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত করা হয়নি। নথির ভিত্তিতে আইসিআইজে ও তার সহযোগী কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম খবর প্রকাশ করছে। এই নথি সবার জন্য উন্মুক্ত করার দাবি জোরালো করতে টুইটারে ভোট নিচ্ছে উইকিলিকস।

এখন পর্যন্ত ‘পানামা পেপার্স’-এ বাংলাদেশিদের সম্পর্কে যা জানা গেছে তা শুধু সংখ্যার হিসাবে। পানামা পেপার্স-র ভিত্তিতে একটি ইনফোগ্রাফ তৈরি করেছেন আইরিশ টাইমসের ডিজিটাল প্রোডাকশন সম্পাদক ব্রায়ান কিলমার্টিন। সেখানে দেখা গেছে, বাংলাদেশের তালিকায় দুটি কোম্পানি রয়েছে, সুবিধাভোগী রয়েছেন একজন এবং অংশীদার ২২ জন।

P Papaers-Obsrvr-wrong
অবজারভারে প্রকাশিত খবরের স্ক্রিনশট

দুদকের তদন্ত

দৈনিক সমকালের এক খবরে বলা হয়েছে, দেশি সংবাদমাধ্যমে ‘পানামা পেপার্স’-এ উঠে আসা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে তদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

২০১৩ সালের জুলাই মাসে নিউ এইজে ‘অফশোর লিকস’-এর ভিত্তিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনের সূত্র ধরে কাজী জাফরউল্লার বিদেশি সম্পদ তদন্তের উদ্যোগ নিয়েছিল দুদক।

আইসিআইজে-র এক প্রতিবেদনেই এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। যদিও ওই প্রতিবেদনে দেয়া নিউ এইজের দুটি প্রতিবেদনের লিঙ্ক এখন আর সক্রিয় নেই.


নিউ এইজের  দুই প্রতিবেদনের নিষ্ক্রিয় লিঙ্ক:

Advertisements

মন্তব্য?

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s