মাহফুজ আনামের বক্তব্য আমাদের সাংবাদিকতার দেউলিয়াত্বেরই প্রমাণ

মাহফুজ আনাম-ডিজিএফআই ইস্যুতে দেশের তরুণ সাংবাদিকদের ভাবনার অংশ হিসেবে এই লেখাটি প্রকাশ হয়েছে। লেখক বর্তমানে ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনে কর্মরত।

অনুপম দেব কানুনজ্ঞ

রাষ্ট্র পরিচালনার রাজনীতি নিয়ে সংবাদ পরিবেশনের চেয়ে সংবাদের মাধ্যমে রাষ্ট্র পরিচালনার রাজনীতিকে প্রভাবিত করার দিকেই নজর বেশি- ডেইলি স্টার-প্রথম আলোর বিরুদ্ধে অনেক দিন ধরেই এমন অভিযোগ আছে। এর পক্ষে-বিপক্ষে অনেক যুক্তি থাকলেও এবারের

ADK
অনুপম দেব কানুনজ্ঞ

মতো কখনই এতো স্পষ্ট হয়ে বিষয়টা সামনে আসেনি।

মাহফুজ আনাম, একজন শ্রদ্ধেয় জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ও সম্পাদক, নিজেই পরোক্ষভাবে সেটা স্বীকার করে নিলেন। একপক্ষ বলছেন, স্বীকার করে তিনি মহত্বের পরিচয় দিয়েছেন, অন্যপক্ষ বলছে তিনি চাপে পড়ে তা স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছেন। আমি মনে করি, মাহফুজ আনামের বক্তব্য আমাদের সাংবাদিকতার দেউলিয়াত্বই প্রমাণ করেছে।

এই বক্তব্যের মানে এই না যে, তিনি এখন থেকে তার সম্পাদনা নীতি পরিবর্তন করবেন, বা অন্য সম্পাদকেরাও ক্ষমা প্রার্থনা করে সত্যিকার সাংবাদিকতায় ফেরত আসবেন। মাহফুজ আনামের কৃতিত্ব অন্য জায়গায়। তিনি এটা প্রমাণ করে দিয়েছেন, আমরা নিজেদের যতোটা জাতির বিবেক মনে করি, অতোটা আমরা না।

এখন সেনাবাহিনীর চাপ নেই, তার মানে এই না যে মাহফুজ আনামের পরিস্থিতি এখনও সৃষ্টি হচ্ছে না, এখনও শাসকগোষ্ঠীর পক্ষে বা বিপক্ষে ইচ্ছেকৃত সংবাদের ‘ক্ষমতা প্রদর্শন’ হচ্ছে না। এইটা শুধু একজন মাহফুজ আনাম বা একটি পত্রিকার লজ্জা নয়, ক্ষুদ্র একজন ‘তথাকথিত’ সাংবাদিক হিসেবে আমারও লজ্জা। কিন্তু খুব শিগগিরই কি এ লজ্জা দূর হওয়ার সম্ভাবনা আছে? আমি দেখি না।


Advertisements

মন্তব্য?

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s